কোথাও কেউ নেই

কালজয়ী নাটক “কোথাও কেউ নেই” এর সেরা কিছু কথোপকথন

হুমায়ুন আহমেদ একবার ভূত এর একটা গল্প লিখেছিলেন। নওয়াজেশ আলী খান (বিটিভির ডিরেক্টর) টেকনিকাল কারন দেখিয়ে সেটা বাদ দিয়ে দেন। হুমায়ুন আহমেদ এর মন তাতে বেশ খারাপ হল। তিনি একটা কাগজে লিখলেন “কোথাও কেউ নেই”।

নওয়াজেশ আলী খান বললেন কি বলেন কোথাও কেউ নেই! এই যে আমি আছি আপনার পাশে। তখনও সম্ভবত কেউ জানতোনা বাংলাদেশ এর ইতিহাসের সব থেকে আলোড়িত আর জনপ্রিয় নাটকটা বানানো হচ্ছে। “কোথাও কেউ নেই” নিয়ে কি হয়নি বাংলাদেশে?

আমার বয়স তখন ৯ কি ১০। বাকের ভাইয়ের শেষ পর্বে ফাঁসি হল। লাকজন ভয়াবহ ক্ষ্যাপা বদি মিথা সাক্ষী দিল দেখে তাকে মৃত্যুর হুমকি দেওয়া হল। আবুল খায়ের এর সাদা গাড়ীতে ইট মারা হল। কুাওয়ালীকে মৃত্যুর হুমকি দেওয়া হল। মনে আছে বাকের ভাইয়ের ফাসি আমিও সহ করতে পারিনাই। শেষ পর্বে ফজরের আযান এর সময় মুনা লাশ নিতে আসল। ব্যাকগ্রাউন্ডে তখন হাওয়ামে উড়তা যায়ে গানটা স্লো মোশনে বাজছে। বাংলাদেশ এর আপামর জনগন মুনার কষ্টের সাথে সামিল হচ্ছে। তারা স্লোগান দিচ্ছে হুমায়ূন এর চামড়া তুলে নিব আমরা।

মুনা ছিল সুবর্ণা মুস্তফা যাকে নিয়েই ছিল আবতিত কাহিনী। আর বাকের ভাই আসাদুামান নুর। তখন লাকে মুখে একটাই নাম বাকের ভাই। আসাদুামান নুর নিজেও জানেননা তিনি কি দিয়ে গিয়েছিলেন। তাকে আসাদুামান নুর বলার থেকে বাকের ভাই বলতেই মনে হয় বেশি ভাল লাগে।

যাই হোক এই নাটকের কিছু অংশ আমি তুলে ধরলাম। এখানে ডায়লগগুলো পড়ে আসলে কিছুবুঝা যাবেনা, পুরো নাটকটা অথবা বইটি পড়বেন। আমি খালি যতটুকু মনে থাকে ততটুকুদিলাম।

মুনাঃ চশমাটা খুলুন। (বাকের ভাই চশমা খুললেন) এখন বলুন রিকশাওয়ালাটাকে মার খাওয়ালেন কন?
বাকের ভাইঃ মারলাম কোথায়!? একটু টিপে দিয়েছি।
মুনাঃ আপনাকে টিপে দিতে বলেছি? আমার সমস্যা আমি দেখব।
বাকের ভাইঃ তুমি angry হচ্ছ কেন? অকারনে angry is bad for health.
মুনাঃ কথায় কথায় ইংরেজি বলবেননা। যে ভাষাটা জানেননা সেটা বলতে যান কেন?
বাকের ভাই (অবাক হয়ে): আমি ইংরেজি জানিনা!! Who told! Wrong information very wrong information.


বদিঃ যান কই বাকের ভাই।
বাকের ভাইঃ (মুনা কে) রিকশা ঠিক করে দিয়ে আসি। মেয়ে ছেলে সব কিছুকরতে পারে কিন্ত রিকশা ঠিক করতে পারেনা।
বদিঃ বাকের ভাই সিগারেট উলটা হইসে।
(রিকশাওয়ালা পাওয়ার পর)
বাকের ভাইঃ আই খালি stop। stop। no movement।
রিকশাওয়ালাঃ কই জাইবেন?
বাকের ভাইঃ কথা বলবেনা। কথা কম কাজ বশি। less talk, more work.


বাকের ভাইঃ মুনা মেয়েটা আমাকে খুব লাইক করে।
বদিঃ আপনাকে লাইক না করে উপায় আছে?
বাকের ভাইঃ মাঝে মাঝে অবশ্য খুব রাগ দেখায়।
বদিঃ মেয়েছেলের মুখে এক কথা, অন্তরে ভিন্ন কথা।
বাকেরঃ Correct. আজিজ মিয়া গান দাও।
বদিঃ হাওয়ামে উরতা গানটা দাও। ঐটা বাকের ভাইয়ের হিট গান।


মুনাঃ কি ব্যাপার?
বাকের ভাইঃ ভাল আছো?
মুনাঃ মানে আপনি রাত ১২টার সময় খবর নিতে আসছেন আমি ভাল আছি কিনা?
বাকের ভাইঃ না মানে, মামী কেমন আছেন?
মুনা; মামীর খবর তো বিকালে নিয়ে গেলেন!
বাকের ভাইঃ না মানে সিরিয়াস রোগী তো, তাই মনের মধ্যে অল দ্যা টাইম চিন্তা।
মুনাঃ চিন্তা দূর করুন, মামী ভাল আছেন।
বাকের ভাইঃ গুড, আজ সকালে তামার অফিসে গিয়েছিলাম।
মুনাঃ কেন?
বাকের ভাইঃ পাশ দিয়ে যাচ্ছিলাম তাই। ভাবলাম একই পাড়ার মেয়ে খবর নিয়ে যাই।
মুনাঃ ওহ পাড়ার মেয়েদের জন্য তো আপনার খুব দরদ।
বাকের ভাইঃ কি যে বল দরদ থাকবেনা!! এই দুনিয়া থেকে সবই তো উঠে গেছে খালি দরদটাই তো বাকি আছে।
মুনাঃ তা আপনি আপনার সব দরদ নিয়ে বাসায় চলে যান।
বাকের ভাইঃ মামুন সাহেবের সাথে বিয়ে কবে হচ্ছে?
মুনাঃ খুব শিগগিরিই হচ্ছে। যখন হবে তখন আপনাকে দাওয়াত দিব আপনি এসে খেয়ে যাবেন।
বাকের ভাইঃ মামুন সাহেব লোক কেমন? খুব মাই ডিয়ার টাইপ?
মুনা কপাল কুচকায় তাকিয়ে থাকে
বাকের ভাইঃ মুনা এক গ্লাস পানি খাব।
মুনাঃ অকারনে যন্ত্রণা করবেননা। আপনি আপনার বাসায় যান। গিয়ে এক গ্লাস কেন এক বালতি পানি খান। এখন যান।
বাকের ভাই গিয়ে আবার ফরত আসল। মুনাও পানির গ্লাস নিল।
বাকেরঃ নাহ ভাবলাম পানি না খেয়ে গেলে তাোমার অমঙ্গল হবে। তাোমার অমঙ্গল হবে ভাবতেই খুব খারাপ লাগছে।
মুনা হাওয়ামে উড়তা যায়ে কাসেটটা ফেরত দিল।
মুনাঃ গান হয় না। তিনজন মূর্তির মত বসে থাকেন দেখতে খুব খারাপ লাগে।


(উকিল মায়ুন ফরীদি)
বাকের ভাইঃ সার আমাকে চিনতে পারছেন?
উকিলঃ মানুষ চিনে রাখা আমার কাজ না আমার কাজ হল অপরাধ চিনে রাখা। কি অপরাধ করেছেন বলুন দখি চিনতে পারি কিনা।
বাকের: সার ঐ যে।
উকিলঃ হা চিনেছি। অস্ত্র মামলা।
বদিঃ সার মাই নম ইজ বদি।
উকিলঃ এটা আপনার সই গাধা এসিস্ট্যান্ট না। ওকে দূরে যতে বলেন বোকা লাোক আমি একদম সহ্য করতে পারিনা।
এইবার বলেন কি বাপার
বাকের ভাইঃ বাপারটা হল…
উকিলঃ আপনিও কথা বলবেন না। আমার ধারনা আপনিও বোকা প্রকৃতির লাোক। যা বলার আপনি বলেন (মুনা কে দখিয়ে)।
মুনাঃ আমার মামাকে গত রাতে।
উকিলঃ টাকা পয়সার অবস্থা কি?
মুনা; জ্বি?
উকিল। না মানে আমি প্রচুর টাকা নিয়ে থাকি। না জেনে থাকলে মঞ্জুর বলে দিবে।
বাকের ভাইঃ টাকা পয়সার বাপারটা consider করতে হবে স্যার। very poor, very needy মুনাঃ চুপ করেন তো বাকের ভাই। কাোনো consider করতে হবেনা।
(কিছকথা পর)
উকিলঃ চুরি চামারি কেস আমি নেই না। আমি চাোরের উকিল ও না। আপনার মামা যদি কখনও খুন খারাপি করে তাহএল আসবেন।
বাকের ভাইঃ কেসটা আপনাকে নিতেই হবে সার।
বদিঃ না বললে হবেনা সার। আমি আপনার পায়ে পড়ি। । I touch your foot.


বাকের ভাইঃ তাোমার নানাজানের অবস্থা তো কেরোসিন।
মুনাঃ কি?
বাকের ভাইঃ ওল্ড ম্যান, সময় হয়ে এসেছে। কো কো করতেসে।
মুনাঃ এভাবে কথা বলবেন না তা বাকের ভাই।


বাকের ভাই জেলে, মুনা দেখতে গিয়েছে
বাকের ভাইঃ আরে মুনা! কি আশ্চর্য! কেমন আছ?
মুনাঃ ভাল আছি।
বাকের ভাইঃ তুমি আসবা চিন্তাই করিনাই। বসো।
মুনাঃ কোথায় বসব? মেঝেতে?
বাকের ভাইঃ দাঁড়াও চেয়ার দিতে বলি। সেন্ট্রি…
মুনাঃ লাগবেনা বাকের ভাই।
বাকের ভাইঃ মুনা কেমন আছ।
মুনাঃ ভাল আছি একটু আগেই বলেছি।
বাকের ভাইঃ তুমি আসায় আমার কি…জে ভাল লাগতেছে। মাথাটা এলোমেলো হয়ে গেছে। মামুন সাহেব কেমন আছেন?
মুনাঃ আমি আপনার উকিল (হুমায়ুন ফরীদী) এর কাছে গিয়েছি। সে বলেছে সে আপনার কেস নিবে। আপনাকে বের করে আনবেন।
বাকের ভাইঃ তাতো আনবেনি। জামিন তো ওর জন্য কিছুনা। পানি ভাত।
মুনাঃ এখানে হাজত ঘরে একা একা থাকতে আপনার খারাপ লাগেনা?
বাকের ভাইঃ কি আর করার। তবে ঐ হাওয়ামে উড়তা যায়ে গানটার জন্য মনটা খুব টানে।
মুনাঃ পৃথিবীতে এত গান আছে। ঐ একটা গান এর মধ্যে আপনি কি পেলেন বলেন তো?
বাকের ভাইঃ পৃথিবীতে এত পুরুষ মানুষ আছে। কিন্তু তোমার পছন্দের পুরুষ মানুষ তো একটাই। মামুন সাহেব।
মুনাঃ বাকের ভাই আমি যাই।
বাকের ভাইঃ আরেকটু থাকো মুনা। ২মিনিট।
মুনাঃ ২মিনিটে কি হবে বাকের ভাই?
বাকের ভাইঃ ২মিনিট কিন্তু কম না, ফাসির আসামীর জন ২মিনিট অনেক সময়।


মুনাঃ ঝগড়া টগড়া কিছু হয়নি বাকের ভাই। মামুন বিয়ে করেছে। আপনার কাছে ছুটো একটা অনুরোধ। মামুন সম্পর্কে আমাকে আর কিছু জিজ্ঞেস করবেন না।
বাকের ভাইঃ মুনা যাই।
মুনাঃ দাড়ান বাকের ভাই চা খয়ে যান।
বাকের ভাইঃ মুনা চা খাবনা। আমার মনটা খুব খারাপ হয়েছে।
মুনাঃ জানেন বাকের ভাই। এ পৃথিবীতে কিছুকিছু মানুষ শুধু কষ্ট পাওয়ার জন্যই জন্মায়। আমাকে দেখুন। আমি জ্ঞ্যানত কখনো কারো কানো ক্ষতি করিনাই। অথচ দেখুন আমি শুধু কষ্টই পাচ্ছি। আমার মাঝে মাঝে মনে হয় আমার বাকি জীবনটা কষ্টেই যাবে। আপনি কাঁদছেন নাকি বাকের ভাই?
বাকের ভাইঃ না মুনা। আমার চোখে কি জানি পড়েছে।
মুনাঃ আপনি একজন চমৎকার মানুষ বাকের ভাই। আমার মাঝে মাঝে মনে হয় আমার বুঝি আপনাকেই ভালোবাসা উচিত ছিল।

কোথাও কেউ নেই pdf free download করুন

বইয়ের ফেরিওয়ালা থেকে যে কেউ যেকোনো সময় বিনামূল্যে যেকোনো বই ধার করে পড়তে পারে।
বইয়ের ফেরিওয়ালা থেকে বই ধার করতে এখানে ক্লিক করুন

বইয়ের ফেরিওয়ালায় আপনার লেখা প্রকাশ করতে চাইলে অথবা কোন বই রিভিউ করতে চাইলে লেখা পাঠান

Facebook Comments

You may also like...

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *