অন্দরমহল সাদাত হোসাইন pdf

অন্দরমহল – সাদাত হোসাইন

“আমাদের কিছুই নেই অথচ সবটা সময় জুড়ে ভাবি এই বুঝি নিঃস্ব হলাম”

– সাদাত হোসাইন (অন্দরমহল)

সাদাত হোসাইনের ৪৩৮ পৃষ্ঠার উপন্যাস অন্দরমহলের সর্বশেষ লাইন এটা। এই এক লাইনেই লেখক আমাদের সুখের পিছনে নিরন্তর ছুটে চলা জীবনের অন্তঃস্বারশূন্যতাকে চিহ্নিত করে দিয়েছেন। অথচ জীবন এক অদ্ভুত অঙ্কের নাম। যার ফলাফল সাধারণত শূন্যে নির্ধারিত। অথচ মানুষ এই সুনিশ্চিত ফলাফল জেনেও কি সুতীব্র সম্মোহনে সারাজীবন ধরে সেই জটিল হিসেবগুলোই না কষে চলে। মানুষের এই জটিল মন, অন্তর্জগত নিয়েই এক বিচিত্র উপন্যাস অন্দরমহল।

নবীন লেখক হলেও বর্তমানের তরুন প্রজন্ম থেকে শুরু করে সকল বয়সী মানুষের কাছে সাদাত হোসাইন একটি পরিচিত নাম। কবিতা লিখে সাহিত্য প্রাঙ্গনে তার পদচারণা শুরু হলেও মূলত গদ্য লেখক হিসেবেই তিনি বেশি পরিচিত। হুমায়ুন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার, শুভজন সাহিত্য পুরস্কার সহ বিভিন্ন পুরস্কার রয়েছে তার ঝুলিতে।

অন্দরমহল কেন ঐতিহাসিক উপন্যাস নয়, পুরোপুরি ফিকশন ধর্মী উপন্যাস। এটি হিন্দু এক জমিদার পরিবারের আখ্যান। বিষ্ণুপুরের জমিদার বিষ্ণুনারায়ন অসুস্থ হয়ে পড়লে সবাই পরবর্তী জমিদার হিসেবে তার মেজো ছেলে দেবেন্দ্রনারায়ন কে বেছে নেয়। তার জমিদারি আচরন, অত্যাচারী মনোভাব ও খামখেয়ালি আচরন সবাইকে ভাবতে বাধ্য করে তিনিই হতে পারেন যোগ্যজমিদার। বিষ্ণুনারায়ণের বড় পুত্র অবনীন্দ্রনারায়নের জমিদারির প্রতি লালসা নেই কিন্তু বাধ সাজলো তার স্ত্রী বিনাবালা।

এক রহস্যময়ী চরিত্র। যে দিনের পর দিন গঙ্গামহল তথা জমিদার বাড়িতে রোপন করেছে এক বিষবৃক্ষ। যা এক সময় ডালপালা ছাড়িয়ে বিশাল আকার ধারন করে। সেই সময়ে গুটিবসন্ত মহামারি আকার ধারণ করলে আক্রান্ত হয় স্বয়ং দেবেন্দ্রনারায়ন। তখন শশ্মান হয়ে যাওয়া বিষ্ণুপুরের হর্তাকর্তা হন বিনাবালা। দেবেন্দ্রনারায়ন এক সময়কার প্রতাপশালী জমিদারপুত্র এবং হবু জমিদার গুটি বসন্তের প্রকোপ থেকে রক্ষা পেলেওহয়ে পড়েন পক্ষাঘাত গ্রস্থ। এটা কি তবে ওনার কৃত পাপের ফল?

যেই পাপের সাথে জড়িয়ে আছে বাইজী হেমাঙ্গীনি দেবী কিংবা অন্ধ বিঁভুই। পক্ষাঘাত গ্রস্থ দেবেন্দ্রনারায়ন বুকের মধ্যে আস্ত এক নোনা জ্বলের সমুদ্র লুকিয়ে রেখে খটখটে শুকনো চোখে সারাজীবন কাটিয়ে দেয়।সকলেই তার কঠিন চোখজোড়া দেখে, নোনা জ্বল কারো চোখে পড়ে না।

অসহায় দেবেন্দ্রনারায়নন কি শেষ পর্যন্ত পারবেন জমিদারীর সিংহাসনে বসতে? নাকি জীবনের কাছে হার মেনে পাড়ি দিবেন অদেখা ভুবনে? জনতে হলে পড়তে হবে সাদাত হোসাইনের অন্দরমহল বইটি।

অন্দরমহল!
বহু পুরনো আবহে লেখা একটি উপন্যাস। এই উপন্যাস জুড়ে কেবল গঙ্গামহলের অন্দরের কথাই বলা হয়নি! বলা হয়েছে মন ও মানবের এক সুগভীর মহলের কথা। মানব মনের রহস্য উন্মোচনের কথা।

রিভিউ করেছেনঃ শাওয়ানা সুয়াইবিয়া অন্বী, ইংরেজি বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

বইয়ের ফেরিওয়ালা থেকে বই ধার করতে সদস্য হোন

বইয়ের ফেরিওয়ালায় লিখতে চাইলে এইখানে লেখা জমা দিন

Facebook Comments

You may also like...

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *